ডিমের দুটি সুস্বাদু রেসিপি

ডিম সিদ্ধ বা ভাজি করা ছাড়া অনেকেই আর কিছু ডিম দিয়ে করতে পারি না। কিন্তু যখন আপনি খুব তাড়াহুড়োর মধ্যে থাকেন এবং সকালের নাশতার সময় পান না, তখন চটজলদি একটা ডিম খেয়ে নিতে পারেন। এই ডিম সারা দিন আপনার শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টি চাহিদা মেটাবে। সবচেয়ে সস্তা আর স্বাস্থ্যকর প্রোটিন হিসেবে ডিমের তুলনা হয় না। এতে প্রচুর পরিমাণে সেলেনিয়াম, ভিটামিন ডি, বি৬ ও বি১২ রয়েছে। আর মিনারেলস হিসেবে রয়েছে জিঙ্ক, আয়রন ও কপার।

ডিমকে আরো মুখরোচক করতে চাইলে আপনি নিজের মতো করে বিভিন্ন রেসিপি তৈরি করে নিতে পারেন। এখানে ডিম দিয়ে ঝটপট তৈরি করার দুটি রেসিপি দেওয়া হলো। একনজরে দেখে নিন :

এগ সালাদ স্যান্ডউইচ

উপকরণ : পাউরুটি চার টুকরা, সেদ্ধ ডিম দুটি, মেয়োনেজ অথবা মাখন চার চা চামচ, টমেটো একটি, অল্প পেঁয়াজ রিং, ক্যাপসিকাম কুচি দুই টেবিল চামচ, লেটুস পাতা অর্ধেকটা, শুকনো মরিচ গুঁড়া সামান্য, গোলমরিচের গুঁড়া সামান্য, লবণ স্বাদমতো ও ঘি পরিমাণমতো।

প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে একটি বাটিতে ডিম, মেয়োনেজ, শুকনো মরিচের গুঁড়া, লবণ ও গোলমরিচের গুঁড়া ভালো করে মিশিয়ে নিন। পাউরুটির ওপর এই মিশ্রণ ভালো করে ছড়িয়ে দিন। এর ওপর টমেটো কুচি, পেঁয়াজ রিং, ক্যাপসিকাম ও লেটুস পাতা দিন। এবার অন্য একটি পাউরুটি দিয়ে ঢেকে দিন। অল্প আঁচে সামান্য ঘি দিয়ে ৩০ সেকেন্ড পাউরুটির দুই পাশ সেঁকে নিন। ব্যস, খুব সহজেই তৈরি হয়ে গেল স্বাস্থ্যকর এগ সালাদ স্যান্ডউইচ।

পটেটো অ্যান্ড এগ সালাদ

উপকরণ : সেদ্ধ আলু ৫০০ গ্রাম, সেদ্ধ ডিম দুটি, মেয়োনেজ চার টেবিল চামচ, সরিষা বাটা এক চা চামচ, পেঁয়াজ কলি কুচি দুটি, ছোট টমেটো কুচি দু/তিনটি, সবুজ ক্যাপসিকাম কুচি দুই থেকে তিন টেবিল চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া সামান্য, ধনেপাতা কুচি দুই টেবিল চামচ ও লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে একটি বাটিতে সেদ্ধ আলু হালকা চটকে নিন। ভর্তার মতো করবেন না, যেন কিছুটা আস্ত থাকে আর কিছুটা মিশে যায়। এবার এতে ডিম, মেয়োনেজ, সরিষা বাটা, পেঁয়াজের কলি, টমেটো কুচি ও ক্যাপসিকাম কুচি দিয়ে একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার এর মধ্যে লবণ ও গোলমরিচের গুঁড়া দিন। সবশেষে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে ৩০ মিনিট ফ্রিজে রেখে দিন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল পটেটো অ্যান্ড এগ সালাদ।